ফেইক

মৃত শিশুর ছবি জীবিত হিসেবে ভাইরাল করে ধোঁকাবাজি

Factখুঁজি প্রতিবেদক, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

মাঝে মধ্যেই র্মর্মস্পর্শী ছবি দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে হয় আর্থিক সাহায্য অথবা লাইক, কমেন্ট, শেয়ার চাওয়া হয়। সেগুলোর বেশীর ভাগই ভুয়া, উদ্দেশ প্রণোদিত এবং প্রতারণামূলক। তেমনই একটি ছবি সম্প্রতি বার বার ভাইরাল হচ্ছে। গত জুলাই থেকে ছবিটি নিয়মিতভাবে বাংলাদেশে শেয়ার হচ্ছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে অসুস্থ একটি ছেলেকে ধরে একজন পুরুষ ও মহিলা কাঁদছে। ছবিটিতে “ লাইক, শেয়ার এবং কমেন্ট চাওয়া হয়। লেখা হয় ছবিটিতে এক লাইক ১ টাকা; কমেন্ট ২ টাকা এবং শেয়ার করলে ৫ টাকা উঠবে। যা ছেলেটির চিকিৎসায় ব্যয় হবে। অনেকেই সরল মনে ছবিটি শেয়ার করছে মানবিক দিক বিচার করে। তবে এটি সম্পূর্ণ ভুয়া।

Factখুঁজির অনুসন্ধাণে বেরিয়ে এসেছে ছবিটি ভারতের এবং দুই বছর আগেই ছবির ছেলেটি মারা গেছে। নিউমনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ছেলেটি ভারতের বিহার রাজ্যে মারা যায় ২০১৮ সালের আগস্টে। এ নিয়ে খবরও প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। যেখানে ছেলেটি ভুল চিকিৎসায় মারা গিয়েছে বলে দাবী করে স্বজনরা। তবে যে ক্লিনিকে ছেলেটির চিকিৎসা হয়েছে সেখানকার ডাক্তারদের দাবী ছেলেটি ভর্তি হবার আগেই মারা গিয়েছে। মূল বিষয় হচ্ছে ছেলেটি বেচে নেই এবং তাঁর ছবি বিভিন্ন প্রতারক বিভিন্ন উদ্দেশ্যে ভাইরাল করছে। না বুঝেই অনেকে ছবিটি শেয়ার করে প্রতারণার ফাঁদে পা দিচ্ছে।

বাংলাদেশে ভাইরাল হওয়ার পেছনে দায়ী মূলত কলকাতার Habib Skk নামের এক ফেসবুক আইডি। এ বছরে ২৯ জুলাই Habib Skk ছবিটি শেয়ার করলে তা বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়তে থাকে। মূল ছবিটি হিন্দি লেখাসহ ছড়ায়। Habib Skk -এর পোস্টে লেখাকে বাংলায় রূপান্তর করা হয়। আর একারণেই সেটা বাংলাদেশ ছড়ায়।

যাচাই করে দেখা গেছে, শত শত বাংলাদেশী ফেসবুক ইউজার ছবিটিতে শুধু লাইক দেয়নি, সেটা শেয়ারও করেছে। অনেকে বিভিন্ন রকমের কমেন্টও করেছে। গত কয়েকদিন বেশী মাত্রায় ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। এমনকি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষকও গতকাল ১৫ এপ্রিল এই ছবি শেয়ার করেন। গতকালও অনেকে শেয়ার করেছে। এর মূল কারণ হচ্ছে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা সত্য-মিথ্যা যাচাই না করে অনেক কিছু বিশ্বাস করে।

ছবিটি এর আগে ভারতে বেশ কয়েকবার ভাইরাল হয়ার প্রেক্ষিতে India Today যাচাই করে ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর একটি প্রতিবেদন করে, যার শিরোনাম ছিল, “The emotional appeal with this moving picture of a sick child is fake.” অর্থাৎ মানবিক আবেদন সম্পন্ন অসুস্থ শিশুর ছবিটি ভুয়া।পরবর্তীতে Factcrescendo এবং AFP Fact Check-এর বিচারেও এটি ভুয়া প্রমাণিত হয়। এর পরেও এখনও ছবিটি ভারত এবং বাংলাদেশে ভাইরাল হচ্ছে।

ভাইরাল হওয়া ছবিটি এবং ছবিতে অসুস্থ ছেলেটির চিকিৎসায় টাকা দরকার এই খবরটি পুরোপুরি মিথ্যা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *